Our Partners:
Our Partners:
×
logo 

Hero Hunk 150 ইউজার রিভিউ (লিখেছেন আব্দুর রাকিব আদর)

This post is also available in: English

আমাদের (মানুষের) হঠাৎ কোন কিছুর প্রতি ভালবাসা জন্মে না। কোন কিছু ব্যবহার, দেখে তার প্রতি ভালবাসা, আবেগ জন্মে। তেমনি আমি ২০০৪ সালে ধুম মুভিতে #হায়াবুসা মটরসাইকেল দেখে আগ্রহ জন্মে। আমার বয়স বেশী না, তবে স্কুল লাইফ থেকে মটরসাইকেল চালাই। দীর্ঘ ১১ বছর একটি বাইক চালাই ডিস্কভার ১৩৫ সিসি। গত বছর হিরো হাংক বাইকটা কিনে নেই বাবার কাছ থেকে। আমি আমার বাইকের নাম দেই #কমলাসুন্দরী

আজকে আমার হিরো হাংক বাইক নিয়ে আমার ভাল লাগা, খারাপ লাগার কথা বলবো। আমার বাইক ৯০০০ কি. মি চলছে। ভাল, খারাপ দিক বলার আগে কিছু কথা বলে নেই। আমার বাইক সিটিতে যেমন চলে, তেমনি হাইওয়েতে চলে। আমার বাসা জয়পুরহাট, জীবনের তাগিদে থাকি ঢাকায়। এই ৯০০০ কি.মি এর মধ্যে সিটি, হাইওয়ে রাইড করছি। আমার হাংক নিয়ে আমি প্রায় জয়পুরহাট টু ঢাকা আর রিসেন্ট সিলেট টুর দিয়ে আসছি।

প্রথমে একটি কথা বলবো এই বাজেটের মধ্যে আর কি চান?
তাইলে চলেন শুরু করি আমার হাংক এর সাথে ভাললাগা আর খারাপলাগার গল্প।

আমার বাইকের নাম #কমলাসুন্দরী হিরো হাংক।

hero hunk 150 user review

#কমলা সুন্দরীকেভাল লাগার গল্পঃ 

*সিটিং পজিশনঃ

প্রথমে এই কথা না বল্লেই নয় এর সিটিং পজিশন নিয়ে। আমার একটু স্বাস্থ বেশী আমি। আমি প্রায় জয়পুরহাট টু ঢাকা যাওয়া আসা করি, আবার ঢাকার ভিতরেও দিকে অনেক রাইড করা হয়। এতো কিছুর মাঝেও আমার সিটি পজিশন, কমফোর্ট নিয়ে অনেক অনেক সন্তুষ্ট। ১০০/১০০।

*ব্রেকিংঃ

হ্যাপি☺ আমি অর্ধেকের বেশী হাইওয়েতে রাইড করছি। হাংক এর সামনে ২৪০ মি.মি ডিস্ক ব্রেক আর পিছনে ১৩০মি.মি ড্রাম ব্রেক। সামনের চাকা ৮০/১০০-১৮ এবং পিছনের ১০০/৯০-১৮। আমি এর ব্রেকিং এর কোন খারাপ দিক পাই নাই। অনেকে বলে চিকন চাকা দেখে ব্রেকিং খারাপ। আমার কাছে এটা মনে হয় নাই। তবে, সবার ব্রেকিং করার উপর নির্ভর করে।

*কন্ট্রোলিংঃ

হাংকের ওজন ১৪৫ কেজি। আর ব্রেকিং ভাল তাই আমার কাছে কন্ট্রোলিং ভাল লাগে। হাইওয়েতে কোন সমস্যা ফেস করি নাই আমি।

*থ্রটল রেডি পিকাপঃ

১২.৮ এন.এম টর্ক এবং ১৫.৬ বি.এইচ.পি। রেডি পিকাপ আমার কাছে খুব বেশী মনে হয় নাই আবার খুব কমও মনে হয় নাই। হাইওয়েতে মাঝে মাঝে সমস্যার মখমুখি হয়।

#কমলা সুন্দরীকে খারাপ লাগার গল্প

*লুকঃ আমার কাছে ভাল লাগে না।

*আলোঃ হেডলাইটের আলো একদম বাজে. হাইওয়েতে সাপোর্ট তো পাই নাই, সিটিতেও ঝামেলা মনে হয়। স্টক লাইট বাতিল করে এল.ই.ডি লাগালেই ঝামেলা শেষ।

*সাইন্ডঃ স্পোর্টি সাউন্ড হলে ভাল লাগত।

*টায়ার সাইজঃ টায়ার সাইজ বেশী হইলে লুক আর ব্রেকিং আরো ভাল হইতো।

*চেইন প্রবলেমঃ ফুল চেইন সেট না পাল্টানো পর্যন্ত চেইনের সমস্যা যাবে না। প্রতিদিন চেইন টাইট দিতে হবে।

লেখায় ভুল ত্রুটি হইলে কিছু মনে করবেন না। মানুষ মাত্রই ভুল হয়, ক্ষমা করবেন।

লিখেছেনঃ আব্দুর রাকিব আদর

#Live_Free_Ride_Safe

This post is also available in: English

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।




Enter Captcha Here :

Main Menu